14.3.13

বাতাই

বাংলাদেশে দুই প্রকার বাতাই পাখির তথ্য পাওয়া যায়।
১) ধলাগাল বাতাই, White-cheeked Partridge (Arborophila atrogularis)
এরা সাধারণত মাটিতেই বেশি থাকে গাছে উঠে খুব কম। ধলাগাল বাতাই বনতলের ঝোপে থাকে। ধুসর ও বাদামি রঙের শরীরে জলপাই ছোপ থাকে গাল সাদা এবং চোখের নীচেও সাদা দাগ থাকে। তাই এদেরকে সাদাচিবুক তিতিরও বলে।  

২) লালগলা বাতাই, Rufous-throated Partridge (Arborophila rufogularis)
লালগলা বাতাই জলাশয়ের পাড়ে বিচরণ করে। এদের শরীর সোনালি জলপাই বাদামি এবং গলা লাল হয়ে থাকে। এরা পাহাড়ি তিতির নামেও পরিচিত। 

এরা Phasianidae গোত্র বা পরিবারের (Family) এর পাখি হলেও এদের তথ্য খুব অপ্রতুল। অতীতে চট্টগ্রাম ও সিলেটের চিরসবুজ বলে এদের পাওয়া যেত। বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, চীন ও মায়ানমারে বাতাই বিশ্বে এরা বিপদমুক্ত বলে বিবেচিত হলেও বাংলাদেশে সম্পর্কে তেমন তথ্য নেই। 


লিখেছেন: মাইন রানা

3 comments:

অনুপ সাদি said...

বটেরা আর বাতাই এক নয়। Quail-এর বাংলা বটেরা; মূলত, Coturnix গণের পাখিরা বটেরা। Partridge-এর বাংলা বাতাই, অর্থাৎ Arborophila গণের পাখিরা বাতাই। এই Coturnix ও Partridge গণের পাখিগুলো কিন্তু Phasianidae পরিবারের।
বাংলাদেশে নাটাবটের বা Turnicidae পরিবারের ৩টি প্রজাতিও পাওয়া যায় যা এই তালিকার ৪৬-৪৮ নং এ দেখানো হয়েছে। নাটাবটের-এর ইংরেজি নাম Buttonquail. আশা করি বুঝাতে পেরেছি।

March 17, 2013 at 3:14 AM
ইসমাঈল হোসেন প্রামানিক said...

চরাঞ্চলে কাশবনে মুরগি ভরই বাড়ি চারকি ভরই কি এই একই পাখি?
জানতে চায়।

May 12, 2017 at 10:52 PM
ইসমাঈল হোসেন প্রামানিক said...

চরাঞ্চলে কাশবনে মুরগি ভরই বাড়ি চারকি ভরই কি এই একই পাখি?
জানতে চায়।
@মাইন রানা ভাই

May 12, 2017 at 10:53 PM

Post a Comment