15.11.10

উট পাখি

বিশ্বের সবচেয়ে বড়ো পাখিটি হচ্ছে উট পাখি। যদিও এরা সবচেয়ে বড়ো পাখি কিন্তু এদের ওড়ার ক্ষমতা নেই। তবে দারুণ জোরে ছুটতে পারে এরা। উট পাখিরা ঘন্টায় ৭০ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে। তবেই বোঝো এদের ছোটার ক্ষমতা! এদেরকে সাধারণত আফ্রিকাতে পাওয়া যায়।
এদের উচ্চতা প্রায় ৩ মিটার আর ওজন ১৫০ কেজিরও বেশি হতে পারে। ভাবো একবার, কি পরিমাণ ওজন! এদের রয়েছে বিশাল বিশাল পাখা। কত বিশাল বলো তো, পুরোটা মেলে ধরলে প্রায় ৭ ফুট হবে এর দৈর্ঘ্য। এই বড়ো বড়ো পাখার জন্যই তো এরা উড়তে না পারলেও পাখি। পুরুষ উটপাখি গুলোর পাখার রঙ হয় কালো। এর সঙ্গে থাকে সাদা লেজ। মেয়েগুলোর পাখার রঙ হয় ধুসর বাদামী। বলতেই পারো যে এত বড়ো পাখা থাকার পরও কেন এরা উড়তে পারে না? কারণ এদের শরীরের ওজন অনেক বেশি। এত বেশি ওজন নিয়ে ওড়ার মতো শক্তি তাদের ওই বড়ো পাখাতেও নেই। এজন্যই এরা উড়তে পারে না।
উট পাখিদের এত জোরে ছুটতে পারার ক্ষমতার জন্য এদের দৌড় প্রতিযোগিতা হয়। এই প্রতিযোগিতা নিয়ে মানুষেরা আবার অনেক আনন্দ করে থাকে। দেখতে অনেক বড়োসড়ো হলেও উট পাখিরা কিন্তু মোটেও হিংম্বর নয়। এদের প্রধান খাদ্য হলো বিভিন্ন শস্যদানা। কোনো কোনো সময় অবশ্য এরা পোকামাকড়ও খেয়ে থাকে। এদের তো দাত নেই। সেজন্য খাবার খাওয়ার সময় উট পাখিরা কিছু পাথর খেয়ে নেয়। এই পাথর এদের পাকস্থলীতে খাদ্যদানা হজম করতে পেষার কাজটি করে। একটি পূর্ণাঙ্গ উট পাখি এদের পাকস্থলীতে ১ কেজি পাথর খেয়ে ঘুরে বেড়াতে পারে।
উট পাখির মতই এর ডিমও অনেক বড়ো হয়ে থাকে। পৃথিবীতে সবচেয়ে বড়ো ডিম এই উট পাখিরই। অন্য কোনো প্রাণী আর এতো বড়ো ডিম পাড়ে না। এদের একেকটা ডিমের ওজন হয়ে থাকে ১.৫ কেজি। আর এই ডিম ফুটে বাচ্চা বের হয় ৩৫ থেকে ৪০ দিনে।

লিখেছেনঃ সুমনা হক

0 comments:

Post a Comment